অস্ত্র-গুলিসহ ৬ জলদস্যু আটক

অস্ত্র-গুলিসহ ৬ জলদস্যু আটক

বঙ্গোপসাগরের কক্সবাজার উপকূলে অভিযান চালিয়ে ৬ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে বঙ্গোপসাগরের সোনাদিয়া চ্যানেল থেকে অস্ত্রসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- নেজাম উদ্দিন (২২), মো. সাকিল (২৪), মো. সাজ্জাদ (৩৫), মো. সুজন (২৪), মো. মানিক (৩২) ও ওমর ফারুক (২১)। এরা সকলেই মহেশখালী উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সিপিসি কমান্ডার মেজর শেখ ইউসূফ আহমেদ বলেন, গোয়েন্দা নজরদারির ভিত্তিতে বঙ্গোপসাগরের মহেশখালীর সোনাদিয়া চ্যানেলে মাছ ধরার ট্রলারে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল একদল দস্যু।

এরই প্রেক্ষিতে ছদ্মবেশে র‌্যাবের একটি দল সাগরে অভিযানে যায়। এসময় একটি ট্রলার থেকে অস্ত্র-গুলিসহ তাদের আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

 

অস্ত্র-গুলিসহ ৬ জলদস্যু আটক

বঙ্গোপসাগরের কক্সবাজার উপকূলে অভিযান চালিয়ে ৬ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে বঙ্গোপসাগরের সোনাদিয়া চ্যানেল থেকে অস্ত্রসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- নেজাম উদ্দিন (২২), মো. সাকিল (২৪), মো. সাজ্জাদ (৩৫), মো. সুজন (২৪), মো. মানিক (৩২) ও ওমর ফারুক (২১)। এরা সকলেই মহেশখালী উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সিপিসি কমান্ডার মেজর শেখ ইউসূফ আহমেদ বলেন, গোয়েন্দা নজরদারির ভিত্তিতে বঙ্গোপসাগরের মহেশখালীর সোনাদিয়া চ্যানেলে মাছ ধরার ট্রলারে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল একদল দস্যু।

এরই প্রেক্ষিতে ছদ্মবেশে র‌্যাবের একটি দল সাগরে অভিযানে যায়। এসময় একটি ট্রলার থেকে অস্ত্র-গুলিসহ তাদের আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

অস্ত্র-গুলিসহ ৬ জলদস্যু আটক

বঙ্গোপসাগরের কক্সবাজার উপকূলে অভিযান চালিয়ে ৬ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি বন্দুক ও ১১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারী) দিবাগত রাতে বঙ্গোপসাগরের সোনাদিয়া চ্যানেল থেকে অস্ত্রসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- নেজাম উদ্দিন (২২), মো. সাকিল (২৪), মো. সাজ্জাদ (৩৫), মো. সুজন (২৪), মো. মানিক (৩২) ও ওমর ফারুক (২১)। এরা সকলেই মহেশখালী উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সিপিসি কমান্ডার মেজর শেখ ইউসূফ আহমেদ বলেন, গোয়েন্দা নজরদারির ভিত্তিতে বঙ্গোপসাগরের মহেশখালীর সোনাদিয়া চ্যানেলে মাছ ধরার ট্রলারে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল একদল দস্যু।

এরই প্রেক্ষিতে ছদ্মবেশে র‌্যাবের একটি দল সাগরে অভিযানে যায়। এসময় একটি ট্রলার থেকে অস্ত্র-গুলিসহ তাদের আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *