ঈদগাঁওর সড়ক-উপসড়কে অপ্রাপ্তবয়স্ক ও অদক্ষ চালকের ছড়াছড়ি

ctg news,Chattogram news,ctg news24,bd news,bd news24,bd breaking news,bd news today,cox'bazer news, চট্টগ্রাম নিউজ,Bandarban,Rangamati,

স্টাফ রিপোটার,ঈদগাঁও   প্রতিনিধি

কোন প্রকার প্রশিক্ষণ ছাড়াই চট্টগ্রাম-কক্স বাজার মহাসড়কসহ উপসড়কে যাত্রীবোঝাই তিন চাকার যানবাহনে ছুটছেন অপ্রাপ্ত বয়স্ক ও অদক্ষ চালকরা। ওস্তাদের (চালকের) কাছ থেকে শিখে লাইসেন্স ছাড়াই তারা বসছেন চালকের আসনে। অদক্ষদের হাতে বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক দুর্ঘটনা কমছেনা। যার ফলে হতাহত হচ্ছে অনেকেই।

অনেক যানবাহন মালিকরা দেখে শুনে এসব অপ্রাপ্তবয়স্ক চালকদের হাতে তুলেই দিচ্ছেন চাবি।

জানা যায়,কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কেই তিন চাকার যানবাহন যেন চোখে পড়ার মত।এমনকি দক্ষিন চট্রলার বৃহৎ বানিজ্যিক উপ শহর ঈদগাঁও বাজারসহ নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের উপসড়কেই টমটম ও অটোরিক্সার পাল যেন দেখার কেউ নেই।

কিন্তু সে তুলনায় চালক নেই। তাই গাড়ি মালিকরা বাধ্য হয়ে অদক্ষ, শিশু কিশোরদের হাতে গাড়ির চাবি তুলে দিচ্ছেন। প্রায় চালক যেন ওস্তাতদের কাছ থেকেই শেখানো চালক বটে। এসব যানবাহনের নেই কোন লাইসেন্স।ঝুঁকি নিয়ে কিশোর চালকরা চালাচ্ছেন গাড়ী।

যাত্রী শামসু জানান, বৃহত্তর ঈদগাঁওতে অল্প বয়সী তরুন চালকদের সংখ্যা বেশি। তারা পেশায় চালক না। ঝুঁকি আছে জেনেও এসব গাড়িতে উঠতে বাধ্য হচ্ছি। করার কিছু নেই।

রানা নামের আরেক তরুন জানান,মহাসড়ক ও উপসড়কের সবখানে অদক্ষ-অপ্রাপ্তবয়স্ক চালকের ছড়াছড়ি। তারা অনেক দ্রত বেগে গাড়ি চালায়। সড়কে দাঁড়ানো যাত্রী তুলতেই হঠাৎ ব্রেক দেয়। এতে অনেক যাত্রীর সমস্যা হয়। এছাড়া গাড়ি খালি থাকলে উল্টো পথের যাত্রী নিতে এদিক ওদিক না তাকিয়ে গাড়ি ঘুরিয়ে দেয়। যাতে করে,সড়ক দুর্ঘটনার শংকা রয়েছে

দুয়েক শিক্ষার্থী জানান, কিশোরেরাও রাস্তায় গাড়ি চালায়। এত বেপরোয়াভাবে তারা গাড়ি চালায়,যাত্রীরা সাবধান করলে তারা শুনেনা।এসব তরুন চালকদের বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবীও জানান তারা।

সচেতন মহলের মতে, কিশোর বয়সী চালকরা মালিকদেরকে দৈনিক জমার টাকা বেশি দেয় বলে মালিকরা তাদেরকে গাড়ি দিয়ে থাকে। তদন্ত পূর্বক লোভী মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান। আবার অনেক সময়  মালিকরা নানান কারনে ঐ চালকদের উপর শারিরীক নির্যাতনও করে থাকে।

য়েকজন অভিজ্ঞ চালকরা জানান,অপ্রাপ্ত বয়স্কদের দিয়ে গাড়ি চালানোর পক্ষেই নন তারা। তাছাড়া পেশার প্রবণতা হচ্ছে,হেলপার পরবর্তীতে চালক হয়ে আসে। চালকদের হাত ধরে হেলপারেরা যানবাহন চালানো শেখে। লাইসেন্সধারী, অভিজ্ঞ, দক্ষ চালকের সংখ্যা খুব কম। অল্প সংখ্যক থাকলেও তারা অদক্ষ চালকের কারনে দিশেহারা। 

কিশোর,অদক্ষ ও লাইসেন্স বিহীন চালকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃ পক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.