তিন দিনের রিমান্ড , অধ্যাপক সাইদা হত্যায় গ্রেপ্তার আসামির

তিন দিনের রিমান্ড , অধ্যাপক সাইদা হত্যায় গ্রেপ্তার আসামির

গাজীপুরের কাশিমপুরের পানিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা গাফ্‌ফারকে (৭১) হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ শনিবার সকালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন আদালতের বিচারক মেহেদি পাবেল অধ্যাপকের বাড়ির নির্মাণকাজের ঠিকাদার আনারুল ইসলামের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আসামি আনারুল ইসলাম (২৫) গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার বুজুর্গ গ্রামের আনসার আলীর ছেলে।

তিনি গাজীপুর মহানগরের পানিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের আবাসিক এলাকায় বাড়ি নির্মাণের কাজ করছিলেন। নির্মাণকাজ দেখাশোনার জন্য আবাসন এলাকার পাশেই একটি ভবনে ভাড়া থাকতেন তিনি।

 

গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (অপরাধ) জাকির হাসান প্রথম আলোকে বলেন, আনারুল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, টাকাপয়সার জন্যই সাইদা গাফ্ফারকে হত্যা করা হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে ২ হাজার ৬৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

টাকা লুটে নিতে অধ্যাপক সাঈদা গাফ্ফারকে হত্যায় তাঁরই ‘বাড়ির নির্মাণশ্রমিকেরা’
টাকা লুটে নিতে অধ্যাপক সাঈদা গাফ্ফারকে হত্যায় তাঁরই ‘বাড়ির নির্মাণশ্রমিকেরা’

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার সকালে কাশিমপুরের পানিশাইল পলাশ হাউজিংয়ের একটি জঙ্গল থেকে সাইদা গাফ্ফারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি ১১ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিলেন।

 

তিন দিনের রিমান্ড , অধ্যাপক সাইদা হত্যায় গ্রেপ্তার আসামির

গাজীপুরের কাশিমপুরের পানিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক সাইদা গাফ্‌ফারকে (৭১) হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ শনিবার সকালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামির ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন আদালতের বিচারক মেহেদি পাবেল অধ্যাপকের বাড়ির নির্মাণকাজের ঠিকাদার আনারুল ইসলামের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আসামি আনারুল ইসলাম (২৫) গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার বুজুর্গ গ্রামের আনসার আলীর ছেলে।

তিনি গাজীপুর মহানগরের পানিশাইল এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের আবাসিক এলাকায় বাড়ি নির্মাণের কাজ করছিলেন। নির্মাণকাজ দেখাশোনার জন্য আবাসন এলাকার পাশেই একটি ভবনে ভাড়া থাকতেন তিনি।

 

গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (অপরাধ) জাকির হাসান প্রথম আলোকে বলেন, আনারুল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, টাকাপয়সার জন্যই সাইদা গাফ্ফারকে হত্যা করা হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে ২ হাজার ৬৫০ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

টাকা লুটে নিতে অধ্যাপক সাঈদা গাফ্ফারকে হত্যায় তাঁরই ‘বাড়ির নির্মাণশ্রমিকেরা’
টাকা লুটে নিতে অধ্যাপক সাঈদা গাফ্ফারকে হত্যায় তাঁরই ‘বাড়ির নির্মাণশ্রমিকেরা’

মামলার এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল শুক্রবার সকালে কাশিমপুরের পানিশাইল পলাশ হাউজিংয়ের একটি জঙ্গল থেকে সাইদা গাফ্ফারের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তিনি ১১ জানুয়ারি থেকে নিখোঁজ ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *