৬ বছরে রেকর্ড ভাঙল দিনাজপুরে বৃষ্টি

 

৬ বছরে রেকর্ড ভাঙল দিনাজপুরে বৃষ্টি

পৌষের শেষে আবারও বৃষ্টি, শীত আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত দিনাজপুরসহ দেশের উত্তর জনপদের স্বাভাবিক জনজীবন। গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর জানুয়ারি মাসে এই বৃষ্টিপাত

এবারের পৌষের শীতে দিনাজপুরে বুধবার দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বিকাল থেকে দ্বিতীয় দফার এই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত শুরু হয়। রাতে বজ্রসহ প্রবল বৃষ্টিপাত সংঘটিত হয়।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৮ মিলিমিটার। এ সময়ে এটিই দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, জানুয়ারি মাসে গত ছয় বছরে এটিই স

শীত, বৃষ্টি আর ঘন কুয়াশায় বিঘ্নিত হচ্ছে দিনাজপুরসহ এই অঞ্চলের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। বিশেষ করে কাজের সন্ধানে বের হওয়া নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ পড়েছে বিপাকে।

পৌষের শেষে আবারও বৃষ্টি, শীত আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত দিনাজপুরসহ দেশের উত্তর জনপদের স্বাভাবিক জনজীবন। গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর জানুয়ারি মাসে এই বৃষ্টিপাত

এবারের পৌষের শীতে দিনাজপুরে বুধবার দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বিকাল থেকে দ্বিতীয় দফার এই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত শুরু হয়। রাতে বজ্রসহ প্রবল বৃষ্টিপাত সংঘটিত হয়।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৮ মিলিমিটার। এই সময়ে এটিই দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, জানুয়ারি মাসে গত ছয় বছরে এটিই সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত। এর আগে গত ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে দিনাজপুরে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় ২০ মিলিমিটার। এর পর গত ৫ বছরে জানুয়ারি মাসে মোট বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিলো ৯ মিলিমিটার।

চলতি পৌষ মাসের মাঝামাঝি সময়ে দিনাজপুরে প্রথম দফায় বৃষ্টিপাত হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। সেদিন ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় ৫ দশমিক ২ মিলিমিটার।

বুধবার দিন ও রাতের বৃষ্টিপাতের পর দিনাজপুরে তাপমাত্রা আবারও কমতে শুরু করেছে। দিনাজপুরে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী কয়েক দিন তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমতে থাকবে এবং চলতি জানুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে আরও একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

 

৬ বছরে রেকর্ড ভাঙল দিনাজপুরে বৃষ্টি

পৌষের শেষে আবারও বৃষ্টি, শীত আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত দিনাজপুরসহ দেশের উত্তর জনপদের স্বাভাবিক জনজীবন। গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর জানুয়ারি মাসে এই বৃষ্টিপাত

এবারের পৌষের শীতে দিনাজপুরে বুধবার দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বিকাল থেকে দ্বিতীয় দফার এই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত শুরু হয়। রাতে বজ্রসহ প্রবল বৃষ্টিপাত সংঘটিত হয়।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৮ মিলিমিটার। এ সময়ে এটিই দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, জানুয়ারি মাসে গত ছয় বছরে এটিই স

শীত, বৃষ্টি আর ঘন কুয়াশায় বিঘ্নিত হচ্ছে দিনাজপুরসহ এই অঞ্চলের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। বিশেষ করে কাজের সন্ধানে বের হওয়া নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ পড়েছে বিপাকে।

পৌষের শেষে আবারও বৃষ্টি, শীত আর ঘন কুয়াশায় বিপর্যস্ত দিনাজপুরসহ দেশের উত্তর জনপদের স্বাভাবিক জনজীবন। গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আর জানুয়ারি মাসে এই বৃষ্টিপাত

এবারের পৌষের শীতে দিনাজপুরে বুধবার দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বিকাল থেকে দ্বিতীয় দফার এই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত শুরু হয়। রাতে বজ্রসহ প্রবল বৃষ্টিপাত সংঘটিত হয়।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১৮ মিলিমিটার। এই সময়ে এটিই দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, জানুয়ারি মাসে গত ছয় বছরে এটিই সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত। এর আগে গত ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে দিনাজপুরে সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় ২০ মিলিমিটার। এর পর গত ৫ বছরে জানুয়ারি মাসে মোট বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিলো ৯ মিলিমিটার।

চলতি পৌষ মাসের মাঝামাঝি সময়ে দিনাজপুরে প্রথম দফায় বৃষ্টিপাত হয়। গত ৩০ ডিসেম্বর দিনাজপুরে দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। সেদিন ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় ৫ দশমিক ২ মিলিমিটার।

বুধবার দিন ও রাতের বৃষ্টিপাতের পর দিনাজপুরে তাপমাত্রা আবারও কমতে শুরু করেছে। দিনাজপুরে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী কয়েক দিন তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমতে থাকবে এবং চলতি জানুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে আরও একটি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.