ইসলামাবাদ চরপাড়া-হিন্দু পাড়াবাসী স্থায়ী ব্রীজ চাই

এম আবু হেনা সাগর,ঈদগাঁও প্রতিনিধি

ঈদগাঁও উপজেলার ইসলামাবাদ চরপাড়া-হিন্দুপাড়া ও টেকপাড়াবাসীর একমাত্র ভরসাস্থল কাঁঠের নির্মিত সাঁকোটি। যার ফলে, চরম দুর্ভোগে পড়েন এলাকার নারী পুরুষরা। একটি স্থায়ী ব্রীজ নির্মান দাবী জানান।

এলাকাবাসীর দাবী, দীর্ঘবছর ধরে এলাকার নরনারী, শিক্ষার্থী,ব্যবসায়ী,চাকরীজিবীসহ নানান শ্রেনী পেশার লোকজন ঈদগাঁও বাজারে প্রতিনিয়ত আসা যাওয়া করে থাকেন সাঁকো পার হয়ে। বন্যা সেটি ভেঙ্গে গেলে নৌকায় পারাপার হওয়া ছাড়া আর কোন মাধ্যম নেই।উক্ত স্থানে ব্রীজ নির্মান করেই চলাচলের সূবর্ণ সুযোগ সৃষ্টি করার দাবীও জানান এলাকার লোকজন। 

গতকাল সকালে কাঠের সাকোঁ পরিদর্শনকালে এমনি দৃশ্য চোখে। নর-নারীরা সাঁকো পারাপার হয়ে বাজার মুখী হতে দেখা যায়।  

পথচারী বাবুল কান্তি দে জানান, ৮/১০ হাজার মানুষ প্রতিনিয়ন আসা যাওয়া করে থাকেন ঈদগাঁও নদীর উপর দিয়ে। স্থানীয় লোকজন স্বেচ্ছাশ্রমে বা চাঁদায় বাঁশের সাঁকোটি নির্মাণ করে। এটির উপর ভর করে লোকজন নানা কাজকর্মে চলাফেরা করেছেন। 

তিনি আরো জানান, স্থায়ী একটি ব্রীজ না থাকায় প্রায় দেড় কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে বাজারে আসতে হয়। এছাড়া ডেলিভারীসহ অন্যন্যা রোগীদের আসা যাওয়ার ক্ষেত্রে চরমভাবে বিপাকে পড়েন এলাকার লোকজন। বর্ষাকালে সাঁকোটি ভেঙ্গে গেলে নৌকায় যাতায়াত করে থাকে নানান শ্রেনী পেশার মানুষরা। 

বাবুল আরো জানান, ঈদগাঁও নদী সৃষ্টির পর থেকেই ব্রীজ হয়নি। একটি স্থায়ী ব্রীজ নির্মান করে সাধারন মানুষদের যাতায়াতের সুযোগ সৃষ্টি করার আহবান সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট। 

স্থানীয় মেম্বার সাইফুল ইসলাম জানান,ইসলামাবাদের চরপাড়া-হিন্দুপাড়া-টেকপাড়াবাসীর যাতায়াত ব্যবস্থা  সাঁকো নির্ভর। এলাকার লোকজন সীমাহীন কষ্টের মাধ্যমে এপার ওপার যাতায়াত করে যাচ্ছে দিবারাত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *